জ‌য়ে লাভ, হা‌রে ক্ষ‌তি

86
Advertisement

‌: স্পোর্টস রি‌পোর্টার :  সমীকরন খুব সোজা। বিশ্বাকাপের মূল পর্বে যেতে হলে আজ জিততেই হবে বাংলাদেশকে। হারলে বাজবে বিদায় ঘণ্টা। যা হবে চরম হতাশার ও অপ্রত্যাশিত। ব্যাকফুটে চলে যাওয়া বাংলাদেশের সামনে আজ স্বাগতিক ওমান। প্রথম ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনিকে যারা রীতিমতো উড়িয়ে শুরু করেছে বিশ্বাকাপ মিশন।

আর বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছে লজ্জার হার দিয়ে। আগে থেকেই চোখ রাঙানো স্কটল্যান্ডের মতো দলের সঙ্গে টাইগারদের ৬ রানের হার মেনে নিতে পারছে না কেউ। ন্যক্কারজনক হারে বাংলাদেশের বিশ্বাকাপ টিকে থাকাই এখন প্রবল শঙ্কার মধ্যে। বাছাই পর্ব উতরাতে হলে বাকি দুই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নাই। তারপরও থাকবে যদি-কিন্তুর হালকা হিসাব-নিকাশ। বাংলাদেশ-ওমান ম্যাচটি শুরু হবে আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি, টি স্পোর্টস ও বিটিভি।

এর আগে বিকেল ৪টায় বি গ্রুপের আরেক ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনির মোকাবিলা করবে বাংলাদেশকে লজ্জা উপহার দেয়া স্কটল্যান্ড। প্রথম ম্যাচ জিতে দুই পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে এখন স্বাগতিক ওমান। দলটির নেট রান রেট +৩.১৩৫। +০.৩০০ রান রেট নিয়ে সমান দুই পয়েন্টে দ্বিতীয় স্থানে আছে স্কটল্যান্ড। তিনে থাকা বাংলাদেশের রান রেট -০.৩০০। সবার নিচে থাকা পাপুয়া নিউ গিনির নেট রান রেট -৩.১৩৫।

নিজেদের বাকি দুই ম্যাচ তো জিততেই হবে এখন বাংলাদেশকে। পাশাপাশি তাকিয়ে থাকতে হবে স্কটল্যান্ডের দিকে। স্কটিশরা যদি বাকি দুটি খেলায় ওমান ও পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে জয় পায় সেক্ষেত্রে বি গ্রুপ থেকে সুপার টুয়েলভে যাবে টাইগাররা। তবে স্কটিশরা যদি এক ম্যাচে হেরে যায় সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের পাড়ি দিতে হবে রান রেটের জটিল সমীকরণে।

আজ মাঠে নামবে স্কটল্যান্ডও। প্রতিপক্ষ পাপুয়া নিউ গিনি। ধরা যাক এই ম্যাচে জিতল স্কটল্যান্ড। বাংলাদেশও জিতল ওমানের সঙ্গে। তখন ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে যাবে স্কটল্যান্ড। শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাপুয়া নিউ গিনি। জিততে পারলে ৪ পয়েন্ট হবে বাংলাদেশের। শেষ ম্যাচে ওমানের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। সেখানে ওমান জিতলে তাদেরও পয়েন্ট হবে ৪। তখন তিন দলের পয়েন্ট হবে সমান ৪। রান রেটের হিসাবে শীর্ষ দুটি দল পা রাখবে সুপার টুয়েলভে। তার মানে, বাকি দুটি ম্যাচ খুব দাপটের সঙ্গে জেতার বিকল্প নাই টাইগারদের।

আজ ওমানের বিরুদ্ধে ধারে-ভারে এগিয়ে থাকছে বাংলাদেশ। বড় কোনো অঘটন না হলে সহজেই জেতার কথা মাহমুদউল্লাহদের। আর শেষ ম্যাচের প্রতিপক্ষ তুলনামূলক আরো খর্বশক্তির, পাপুয়া নিউ গিনি। তবে প্রথম ম্যাচে হেরে চাপে পড়া বাংলাদেশ কতটা প্রবলভাবে ঘুরে দাঁড়ায় দ্বিতীয় ম্যাচে, সেটাই দেখার বিষয়।

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ব্যাটিং ব্যর্থতার দায় যেমন নিজের কাঁধে চাপিয়েছেন, সতীর্থদেরও করেছেন সতর্ক। প্রথম হারে টাইগার ক্যাপ্টেন চরম হতাশ হলেও বাংলাদেশ মূল পর্বে খেলবে, এমন বিশ্বাস তার প্রবল। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘(মূল পর্ব নিয়ে শঙ্কা) ওরকম চিন্তা হচ্ছে না। আমরা আমাদের সেরা ক্রিকেট প্রথম ম্যাচে খেলতে পারিনি। যদি আমরা নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারতাম, তাহলে ফল আমাদের পক্ষেই আসত। অন্য কিছু না খেলে আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলার কথাই চিন্তা করতে হবে।’